কক্সবাজারে অবস্থিত 50 টি বিভিন্ন হোটেলের নাম, ঠিকানা ও ফোন নাম্বার

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত বাংলাদেশের মানুষ ও বিদেশী পর্যটকদের জন্য একটি আকর্ষণীয় স্থান। কক্সবাজার পৃথিবীর মধ্যে দীর্ঘ সমুদ্র সৈকত এর মধ্যে প্রথম। এজন্য বাংলাদেশ ছাড়াও অনেক বিদেশি পর্যটক কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতে ঘুরতে আসে। অনেক বিদেশী আছে যারা বাংলাদেশকে চেনে শুধুমাত্র এই দীর্ঘ সমুদ্র সৈকত কক্সবাজার জন্য। তাই কক্সবাজার সমুদ্রসৈকত ঘিরে ছোট-বড় এবং ফাইভ স্টার হোটেল নির্মাণ হয়েছে। আপনি যদি কক্সবাজারের যান তাহলে এই হোটেলগুলোতে আপনি উঠতে পারেন।

যদি হোটেল গুলোর বিবরণ দিতে চাই তাহলে এই হোটেল গুলো সবচেয়ে উন্নত মানের এবং সব রকমের সুযোগ-সুবিধা রয়েছে। এই হোটেলগুলো আপনার আনন্দ বিলাস বহুল অনুভূতি আরও বাড়িয়ে দিবে। হোটেল গুলোতে দৃষ্টিনন্দন সুইমিংপুল রয়েছে। এছাড়াও দেশী বিদেশী খাবার ব্যবস্থা রয়েছে। এজন্য আমাদের ওয়েবসাইট শুধুমাত্র আপনাদের কথা ভেবে এই হোটেল গুলোর ঠিকানা, মোবাইল নাম্বার, ইমেইল নাম্বার, এছাড়াও প্রতিরাতেই হোটেলগুলোতে থাকতে হলে আপনাকে কি পরিমাণ ভাড়া দিতে হবে। তারও তথ্য আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে সংযুক্ত করব। তাই দেরি না করে চলুন দেখে নেই কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে হোটেল গুলোর ঠিকানা।

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত হোটেলের নাম ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত 5 স্টার হোটেল ভাড়ার তালিকা

আপনার ভ্রমণকে আরো আনন্দময় করার জন্য কক্সবাজারে আরো গড়ে উঠেছে অনেক ফাইভ স্টার হোটেল। অনেকেই আছেন যারা ফাইভ স্টার হোটেলের ভাড়া জানতে চান। তাই নিচে আমরা সক এর মাধ্যমে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে যে সমস্ত ফাইভস্টার হোটেল রয়েছে। সকল প্রত্যেক শ্রেণীর বেডের ভাড়া আমরা নিচে সংযুক্ত করছি।

রুম টাইপ সিঙ্গেল/ডাবল ভাড়া
রেগুলার হিল সাইড বা পাহাড়মুখি সিঙ্গেল ৫৮৫০/- টাকা হতে শুরু
রেগুলার হিল সাইড বা পাহাড়মুখি ডাবল ৬৩২৪/- টাকা হতে শুরু
রেগুলার সী সাইড বা সমুদ্রমুখি সিঙ্গেল ৬২৪৫/- টাকা হতে শুরু
রেগুলার সী সাইড বা সমুদ্রমুখি ডাবল ৬৭১৯/- টাকা হতে শুরু
ডিলাক্স হিল সাইড বা পাহাড়মুখি সিঙ্গেল ৭০৩৬/- টাকা হতে শুরু
ডিলাক্স হিল সাইড বা পাহাড়মুখি ডাবল ৭৫১০/- টাকা হতে শুরু
ডিলাক্স সী সাইড বা সমুদ্রমুখি সিঙ্গেল ৭৪৩১/- টাকা হতে শুরু
ডিলাক্স সী সাইড বা সমুদ্রমুখি ডাবল ৭৯০৫/- টাকা হতে শুরু
স্যুইট রুম ১৫০২০/- টাকা হতে শুরু
মধুরিমা স্যুইট ৪৩৪৭৮/- টাকা হতে শুরু

অন্যান্য সুযোগ-সুবিধাসমূহ: 

 হোটেল প্রাঙ্গনে: 

  • বার
  • রেন্টাল কার
  • ফ্রি ওয়াই-ফাই
  • সংবাদপত্র
  • কারেন্সি এক্সচ্যাঞ্জ
  • বিজনেস সেন্টার
  • কনফারেন্স এবং ব্যানকুইট হল
  • লকার
  • লন্ড্রি
  • পাঁচটি বিশ্বম্নানের রেস্তোরাঁ
  • ২৪ ঘণ্টা রুম সার্ভিস
  • ফ্রি পার্কিং
  • লাগেজ রুম
  • এয়ারপোর্ট ট্রান্সপোর্ট
  • বিমান এবং বাসের টিকেটিং সুবিধা
  • প্রাইভেট বীচ

 রুম সার্ভিস: 

  • সেন্ট্রাল এয়ার কন্ডিশনড
  • ঠাণ্ডা এবং গরম পানির সুব্যবস্থা
  • ৪৮টি চ্যানেলসহ ক্যাবল নেটওয়ার্ক সংযুক্ত টিভি
  • টেবিল ল্যাম্পসহ কাজ করার টেবিল
  • হাই স্পীড ইন্টারনেট কানেকশন
  • রুম সেফটি (স্যুইটের জন্য প্রযোজ্য)
  • জরুরী প্রয়োজনে ডাক্তার
  • মিনি বার
  • আইডিডি টেলিফোন

হোটেলের ভেতরে: 

  • হেয়ারড্রেসার
  • ফিটনেস সেন্টার
  • শপিং আর্কেড
  • স্পা এবং ম্যাসাজ
  • সুইমিং পুল
  • সাইবার ক্যাফে
  • কিডস জোন
  • বিলিয়ার্ড ও পুল জোন

আশা করি আপনারা আমাদের উপরোক্ত আলোচনা থেকে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের যেসব হোটেল রয়েছে। সে সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। এ ছাড়াও আপনাদের যদি আমাদের ওয়েবসাইটের লিস্ট ব্যতীত অন্য কোন হোটেলের সম্পর্কে জানতে ইচ্ছে হয়। আমাদের নিচে কমেন্ট বক্সে আছে আপনারা অবশ্যই কমেন্ট করবেন ধন্যবাদ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button