সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী, টিকেট ও ভাড়ার তালিকা

সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেন দক্ষিণের জেলা খুলনা মানুষের কাছে একটি জনপ্রিয় নাম। কারণ সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনটি খুলনা থেকে ঢাকা রেলওয়ে স্টেশনে প্রতিদিন যাতায়াত করে থাকে। তাই খুলনা জেলার মানুষ এই ট্রেনটিতে রাজধানী ঢাকা শহরে চলাচল করতে পারে। সাধারণত সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনটি বাংলাদেশ রেলওয়ে নিবন্ধনকৃত একটি আন্তঃনগর ট্রেন। ট্রেনটি নাম্বার (৭২৫-৭২৬) এই নাম্বারে সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনটি চলাচল করে থাকে।

আজকে আমরা সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনটির বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা এছাড়াও ট্রেনের সময়সূচী, টিকিটের মূল্য, এবং যাত্রাপথে বিভিন্ন স্টেশনে বিরতি নিয়ে থাকে সে সব স্টেশনের সময়সূচির সম্পর্কে আলোচনা করব।

তাই আপনি যদি সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান। তাহলে আমাদের নিবন্ধনটি শেষ পর্যন্ত চোখ রাখুন। আশা করি আমাদের নিবন্ধনের মাধ্যমে আপনি সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনটির সকল প্রকার তথ্য জেনে যাবেন।

সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনটি নামকরণ করা হয় বাংলাদেশের ম্যানগ্রোভ ফরেস্ট বন সুন্দরবন। তাই এই নামে ট্রেনটি নামকরণ করা হয়। সর্বতম এই চলাচল করে 17 ই আগস্ট 2003 সাল থেকে ঢাকা খুলনা রেল পথে যাত্রী পরিষেবা দিয়ে আসছে।

সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী

সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃক পরিচালিত করা হয়। সাধারণত সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকা থেকে খুলনার উদ্দেশ্যে সকাল 8:15 মিনিটে ছেড়ে যায়। এবং খুলনায় পৌঁছায় 17:40 মিনিটে পৌঁছায়। সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনটি সাপ্তাহিক দুইদিন বুধবার এবং শুক্রবার ছুটির দিন হিসেবে গণ্য করা হয়েছে। তাই এই দুই দিনে সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনটি চলাচল করে না। নিচে সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনের সঠিক সময়সূচী দেওয়া হল।

স্টেশনের নাম ছুটির দিন ছাড়ায় সময় পৌছানোর সময়
ঢাকা টু খুলনা বুধবার ০৮ঃ১৫ ১৭ঃ৪০
খুলনা টু ঢাকা শুক্রবার ২২ঃ১৫ ০৭ঃ০০

সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনের বিরতি স্টেশন  সময়সূচী

\ঢাকা থেকে খুলনার উদ্দেশ্যে সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনটি চলাচল করার সময় মোট ১৭ স্টেশনে স্টেশনে বিরতি নিয়ে থাকে। এই স্টেশনগুলো সময়সূচী এবং কতক্ষণ করে বিরতি নিয়ে থাকে সে সম্পর্কে আপনাদের ধারণা দিবো। তাই নিচে টেবিল এর মাধ্যমে এই সব স্টেশনের সময়সূচি দেখে নিন।

বিরতি স্টেশন নাম খুলনা থেকে (৭২৫) ঢাকা থেকে (৭২৬)
দৌলতপুর ২২ঃ২৫ ১৭ঃ১৯
নওয়াপাড়া ২২ঃ৪৯ ১৬ঃ৫২
যশোর ২৩ঃ২০ ১৬ঃ২০
কোটচাদপুর ২৪ঃ০০ ১৫ঃ৪২
চুয়াডাঙ্গা ০০ঃ৫৩ ১৪ঃ৪১
আলমডাঙ্গা ০১ঃ১৩ ১৪ঃ২০
পোড়াদহ ০১ঃ৩২ ১৪ঃ০১
ভেড়ামারা ০১ঃ৫৩ ১৩ঃ৪০
ঈশ্বরদী ০২ঃ১৫ ১৩ঃ০০
চাট্মোহর ০৩ঃ০০ ১২ঃ২৪
বড়াল্ব্রীজ ০৩ঃ১৫ ১২ঃ০৮
উল্লাপাড়া ০৩ঃ৩৬ ১১ঃ৪৬
জামতেল ০৩ঃ৫১ ১১ঃ৩২
শ,এম,ম,আলী ০৪ঃ০০ ১১ঃ২১
বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব ০৪ঃ৪২ ১০ঃ৪৫
জয়দেবপুর ০৫ঃ৫৭ ০৯ঃ১২
বিমানবন্দর ০৬ঃ২৫ ০৮ঃ৪২

সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়ার তালিকা

সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনটি যেহেতু বিলাসবহুল ও আধুনিক একটি ট্রেন সেহেতু এই ট্রেনের চারটি শ্রেণীতে টিকিটের মূল্য নির্ধারিত করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। তাই আপনার সামর্থ্য অনুযায়ী যেকোনো একটি শ্রেণীতে টিকিট সংগ্রহ করে ভ্রমণ করতে পারেন। আপনাদের জানিয়ে রাখি বাংলাদেশ রেলওয়ে অধিদপ্তর টিকিটের মূল্য 15% ভ্যাট সহকারে টিকিট নির্ধারিত করেছে।

স্টেশনের নাম শোভন শোভন চেয়ার প্রথম সিট এসি সিট
জয়দেবপুর ৩৫ ৪০ ৮০ ৯০
মির্জাপুর ৬৫ ৮০ ১০৫ ১৩০
টাঙ্গাইল ৯০ ১০৫ ১৪০ ১৭৫
বি-বি-পূর্ব ১০৫ ১২৫ ১৬৫ ২১০
জামতলী ১৮০ ২১৫ ২৮৫ ৩৫৫
উল্লাপাড়া ১৯০ ২২৫ ৩০০ ৩৭৫
বড়াল ব্রিজ ২০৫ ২৪৫ ৩২৫ ৩৭৫
চাটমোহর ২১০ ২৫০ ৩৩৫ ৪০৫
ঈশ্বরদী ২২৫ ২২৫ ২৭০ ৪২৫
ভেড়ামারা ২৬৫ ২৭০ ৩৩৫ ৪৫০
মিরপুর ২৭০ ৩২০ ৪২৫ ৫৩০
পোড়াদহ ২৮০ ৩২৫ ৪৩৫ ৫৪০
আলমডাঙ্গা ২৯০ ৩৩৫ ৪৪৫ ৫৫৫
চুয়াডাঙ্গা ৩০০ ৩৪৫ ৪৬০ ৫৭৫
কোটচাঁদপুর ৩৩৫ ৩৬০ ৪৮০ ৬০০
যশোর ৩৫০ ৪২০ ৫৬০ ৭০০
খুলনা ৩৯০ ৪৬৫ ৬২০ ৭৭৫

সুতরাং উপরের আলোচনা থেকে আপনারা ইতিমধ্যে জেনে গেছেন সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনটির সকল প্রকার তথ্য। আশাকরি সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনটি আপনি নিরাপদ ও আরামদায়ক ভ্রমণ করতে পারবেন। এছাড়াও আপনার যদি ট্রেনটি সম্পর্কে অজানা প্রশ্ন থেকে থাকে। তাহলে আমাদের কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করুন। ধন্যবাদ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button