তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি কোথায় কোথায় ব্যবহার করা যায়?

আসসালামু আলাইকুম তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি কোথায় কোথায় ব্যবহার করা হয় এ সম্পর্কে আপনারা যদি জানতে চান তাহলে আপনাকে আমাদের ওয়েবসাইটে স্বাগতম। বরাবরের মতোই আমরা আজকে আলোচনা করতে যাচ্ছি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বাংলাদেশের কোন খাতে ব্যবহৃত হয়। বাইরের দেশের মতো বাংলাদেশেও তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অনেক উন্নত হয়েছে। বর্তমান সরকারের আমলে আমরা দেখতে পারি বাংলাদেশের বিশেষ করে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ব্যবহার বেড়েছে এবং এর আধুনিকতা সংস্করণ করা হয়েছে।

যার ফলে বাংলাদেশের মানুষরা এখন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অনেকটাই পারদর্শী এবং এই সুযোগ-সুবিধা ব্যবহার করে অনেক মানুষ প্রকৃত হচ্ছে। তাই আপনারা অবশ্যই আমাদের নিচের আর্টিকেলে প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত থাকবেন এবং দেখবেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বাংলাদেশের কোন শহর গুলো ব্যবহৃত হচ্ছে এবং প্রযুক্তির ব্যবহারের সুযোগ সুবিধা গুলো।

ব্যবসার ক্ষেত্রে সমূহ:

বর্তমানে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ব্যবসা বাণিজ্যে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির সুবিধা বেড়েই চলেছে। যোগাযোগ প্রযুক্তি ব্যবহার করে শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলো আয়ের মুনাফা বৃদ্ধি করে চলেছে। মূলত ব্যবসার ক্ষেত্রে তথ্য প্রযুক্তি একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। কারণ একটি প্রতিষ্ঠানের কমিউনিকেশন এবং তার টেকনোলজির উপর অনেকটাই কোম্পানির ভবিষ্যৎ নির্ভর করে।

কৃষি ক্ষেত্রে

বাংলাদেশ আমরা জানি কৃষি মাত্রিক দেশ। একসময় ছিল কৃষি ক্ষেত্রে ব্যাপ ক অসুবিধা দেখা যেত। কিন্তু বর্তমানে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করায় ইন্টারনেটে অনেক ওয়েবসাইটে কৃষি বিষয়ক অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পরামর্শ দিয়ে থাকে। যা থেকে একটি কৃষক যেমন তার মেধা এবং মানসিকতার পরিবর্তনের সাথে সাথে সে ঘরে বসেই একটি মোবাইলের মাধ্যমে কৃষির পরামর্শ নিতে পারছেন।

চিকিৎসা ক্ষেত্রে

মূলত চিকিৎসা ক্ষেত্রে ব্যাপকভাবে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার লক্ষ্য করা যায়। এক সময় বাংলাদেশের গ্রাম বাংলার মানুষেরা যখন অসুস্থ হতো তখন অনেক দূরে গিয়ে মেডিকেলে শরণাপন্ন হতে হত। কিন্তু এখন বর্তমানে রোগীদের বিভিন্ন সমস্যা টেলিভিশনে টকশোর মাধ্যমে চিকিৎসার ব্যাপক বিষয় জানানো হয়। এবং অনেক ডায়াগনস্টিক সেন্টারে প্রযুক্তি ব্যবহার করে। রোগীদের অনলাইন রিপোর্ট করার সুযোগ করে দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও সম্প্রতি সময়ে অনলাইনে বিভিন্ন অ্যাপের মাধ্যমে ভিডিও কলিং এর মাধ্যমে ঘরে বসে আপনারা চাইলে ডাক্তার দেখাতে পারবেন।

পরিবেশ ও আবহাওয়া

বাংলাদেশে অনেক জলোচ্ছ্বাস এবং দুর্যোগ দেখা যায়। এ সময় আবহাওয়ার পূর্বভাস দেওয়ার জন্য আইসিটি ব্যবহার করা হচ্ছে। আপনারা জানেন ১১ই মে ২০১৮ সালে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট -১ উৎক্ষেপণ করা হয়। এক্ষেত্রে সকালেই তোর সুবাদে বড় প্রাকৃতিক দুর্যোগ গুলো আগে থেকে আবাস পাওয়া যায় এবং সে ক্ষেত্রে দুর্যোগের জন্য ব্যবস্থা আগে থেকে নেওয়া হয়।

গবেষণার ক্ষেত্রে

আপনারা জানেন গবেষণা অনেক আছে। বিভিন্ন দেশে অনেক বিষয় নিয়ে গবেষণা করে থাকে। তাই বাংলাদেশে ও তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার করে আমরা এখন গবেষণা করতে পারছি।

ব্যাংকিং

এক সময় ছিল ব্যাংকের অবস্থা গুলো অনেক ধীরগতিতে এবং গ্রাহকদের সেভাবেতে বিঘ্নত হতো। কিন্তু বর্তমানে প্রযুক্তি ব্যবহার করে অনলাইনে সেবা দেওয়া হচ্ছে বিভিন্ন মোবাইল ব্যাংকিং থেকে শুরু করে এটিএম মেশিন তোলা যায় খুব সহজেই।

শিক্ষা ক্ষেত্রে

বর্তমানে শিক্ষা ক্ষেত্রে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অনেক ভূমিকা রাখছে। যা আমরা বিগত বছর মহামারী করনা কালে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অনলাইনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের ক্লাস নেওয়ার ক্ষেত্রে দেখতে পেরেছি।‌‌ এছাড়াও শ্রেণী কক্ষগুলোতে মাল্টিমিডিয়া ক্লাস এবং ডিজিটাল ডিকশনারি বুক অনলাইনে খুব দ্রুত পাওয়া যাচ্ছে।

প্রযুক্তি ব্যবহারের সুবিধা

আসলে আমরা সকালে যখন ঘুম থেকে উঠি তুই ফোনের মাধ্যমে আমরা সারা বিশ্বের খবর নিতে পারছি। কিন্তু আমরা ২০ বছর আগে এই সুবিধাটি পাইনি। কারন আমাদের দেশের তথ্যপ্রযুক্তি এতটা উন্নত ছিল না। বিশ্বের নানা খবর আমরা ইন্টারনেট থেকে খুব সহজেই পেয়ে যাচ্ছি। থেকে আমাদের জ্ঞান অর্জন বৃদ্ধি হচ্ছে এবং পুরো বিশ্বের খবরদারি রাখতে পারছি। এছাড়াও আমাদের শিক্ষা অনেকগুলো খাতে প্রযুক্তি ব্যবহার করে আমরা জ্ঞানসম্পন্ন অর্জন করছি।

পরিশেষে বলা যায় আমাদের ওয়েবসাইটের থেকে আপনারা সঠিক এবং মূল্যবান তথ্যগুলো পেয়ে যাবেন। তাই প্রতিনিয়ত আমাদের ওয়েবসাইটটি ফলো করুন এবং বিভিন্ন তথ্য উপর আমাদের সাথেই থাকুন। এতক্ষণ আমাদের ওয়েবসাইটে থাকার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button