স্বভাব নিয়ে উক্তি, মুখোশধারী মানুষ নিয়ে উক্তি, স্ট্যাটাস ও কবিতা

আমাদের সমাজে একদল মানুষ আছে যারা মুখোশধারী এবং মানুষের ক্ষতি করে থাকে। অনেক মুখোশধারী মানুষ আছে যাদেরকে আমরা নিয়ে কিছু বলতে পারি না কিন্তু তাদের ক্ষমতা অনেক এজন্য আমরা চাইলে তাদের সম্পর্কে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া যেমন অন্যতম সোশ্যাল মিডিয়া একটি হলো ফেসবুক এখানে আমরা স্ট্যাটাস দিয়ে মাধ্যমে তাদের প্রতিবাদ জানাতে পারি।

এজন্য তাদের মুখোশধারী স্বভাব নিয়ে প্রতিবাদ জানানোর জন্য ফেসবুকটা অন্যতম। তাদের চরিত্র এবং মুকেশের নিচে যে একটি কালো মানুষ রয়েছে এটি আমরা প্রমাণ করতে দিতে পারি। আজকে আর্টিকেলটি আমরা সাজিয়েছি স্বভাব নিয়ে উক্তি এবং মুখোশধারী মানুষের স্ট্যাটাস ও কবিতাগুলো আমাদের ওয়েবসাইটে আপনারা পেয়ে যাবেন।

মানুষের স্বভাব নিয়ে উক্তি

অনেক মানুষ আছে যারা ভালো এবং সমাজে মুখোশধারী মানুষ রয়েছে তাদের নিয়ে আমরা উক্তিগুলো নিজের সংযুক্ত করেছি আপনারা চাইলে এগুলো কপি করে আপনার সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট করতে পারেন।

মানুষের স্বভাব আসলে তিন প্রকার। এক. সে অন্যকে যা দেখিয়ে বেড়ায়। দুই. সে নিজেকে যা মনে করে এবং তিন হলো সে সত্যিকার অর্থে যা।
— আলফাসোঁ কার।

মানুষের স্বভাব ও চরিত্র গঠনের কাজ শিশুকাল থেকে মরণের আগ অবধি চলতে থাকে।
— মিসেস ফ্রাঙ্কলিন ডি রুজভেল্ট।

তোমার স্বভাব যদি নির্মল হয় এবং তুমি যদি সুশিক্ষিত হও তবে তুমি নিজেকে নিয়ে গর্ব করতে পারো।
— ডিজরেইলি।

স্বভাবকে সহজ করার চেয়ে সংশোধন করা কষ্টকর।
— স্যামুয়েল স্মাইল।

কোনো মানুষের সাথে পরিচিত হলে তার চেহার দেখার পূর্বে তার স্বভাব দেখতে চেষ্টা করুন।
— সংগৃহীত।

অর্থের প্রয়োজন নেই, পদমর্যাদার প্রয়োজন নেই। প্রয়োজন আছে শুধু নির্মল স্বভাবের, যা মানুষে সর্বাপেক্ষা প্রয়োজনীয়।
— ব্লাকি।

মুখোশধারী মানুষ নিয়ে উক্তি

সমাজে একদল মানুষ আছে যারা মানুষের ক্ষতি করে এবং নিজেকে ভালো রাখার জন্য একটি মুখোশ পড়ে রাখে যেন সমাজের লোক তাকে ভালো বলে। কিন্তু এই মুখোশধারির লোক গুলো সমাজে এবং দেশের জন্য অনেক খারাপ মানুষ হয়ে থাকে। তাদেরকে নিয়ে কিছু উক্তি আমরা নিচে সংযুক্ত করেছি।

আপনি যদি চান যে লোকে আপনাকে কারা ভালবাসে তবে মুখোশটি খুলে ফেলুন – কোয়েটজল

একটি লাল নাক এটি বিদারণের মুখোশ এবং আমার গোঁফ আমার। – নুনো রোক

প্রেমের মুখোশটি সরিয়ে ফেলার একটি শক্তিশালী উপায় রয়েছে যা আমরা প্রত্যেকে পরাতে জোর দিয়েছি। – জেসি

আপনি কি আন্তরিক? আপনি নিজে? আপনি যেমন চেহারা হিসাবে আছেন? আপনার মুখোশ নেই? তুমি কি ভাবছ? তাহলে আপনি আসল, তবে আপনি জাল নন! – মেহমেট মুরত ইল্ডান

সদগুণ একটি পর্দা আছে, একটি মুখোশ। – ভিক্টর হুগো

আমি একটি নিখুঁত মুখোশের চেয়ে একটি সূক্ষ্ম হৃদয় প্রেমে পড়ি – সায় প্রদীপ

মানুষ সকালে ঘুম থেকে উঠে; তাদের ঘরে অনেকগুলি মাস্ক রয়েছে এবং আজ তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে কোন মাস্কটি পরতে হবে! মানুষের কেবল একটি মুখ, তবে হাজারটি মুখোশ! – মেহমেট মুরাত ইল্ডান

রাজাদের মুখোশের দরকার নেই। একটি মুখোশ নিজের থেকে মুক্তি, একটি অবকাশ । – লিডিয়া জিনোভিভা-আনিবলাল

আমরা সকলেই মুখোশ পরে থাকি তবে এটিই আমরা পরতে পছন্দ করি যা একটি পার্থক্য তৈরি করে। – কিম ইন্নয়ন

স্বভাব নিয়ে স্ট্যাটাস

অনেকে আছে যারা মানুষের ভালো করে এবং মানুষের ভালো চায় তাদের স্বভাব অনেক সুন্দর এবং মানুষের মঙ্গল কামনা করে থাকে। আবার একদল মানুষ আছে যারা মানুষের ক্ষতি করে এবং তাদের স্বভাব অনেক নিকৃষ্ট। তাই যারা ভালো মানুষ তাদের নিয়ে আমরা কিছু স্ট্যাটাস নিচে সংযুক্ত করেছি আপনারা চাইলে দেখতে পারেন।

কোনো মানুষের সাথে পরিচিত হলে তার চেহার দেখার পূর্বে তার স্বভাব দেখতে চেষ্টা করুন।
— সংগৃহীত।

অর্থের প্রয়োজন নেই, পদমর্যাদার প্রয়োজন নেই। প্রয়োজন আছে শুধু নির্মল স্বভাবের, যা মানুষে সর্বাপেক্ষা প্রয়োজনীয়।
— ব্লাকি।

আপনি যদি নিজে থেকে আপনার খারাপ স্বভাব পরিবর্তনে তৎপর না হন, তবে হাজার মানুষের কথা কিংবা শাস্তিও আপনার কোনো উপকারে আসবে না।
— উইলিয়াম বাটলার ইয়েটস্।

আকারে মানুষ হলে মানুষ সে নয়,
স্বভাব যাহার সৎ মানুষ সে হয়। – জোনায়েদ বােগদাদী”

দনিয়ার সব জিনিসই পরিবর্তনশীল কিন্তু স্বভাব ব্যতীত। – এরিস্টটল”

স্বভাব নিয়ে কবিতা

অনেকে আছেন কবিতা পড়তে পছন্দ করেন তাদের জন্য এই কবিতাগুলো হতে পারে আকর্ষণীয় এবং পছন্দ কর মতো। তাই স্বভাব নিয়ে যদি কবিতা খুঁজে থাকেন তাহলে নিচে দেখে নেবেন।

স্বভাব – জীবনানন্দ দাশ

যদিও আমার চোখে ঢের নদী ছিলো একদিন
পুনরায় আমাদের দেশে ভোর হ’লে,
তবুও একটি নদী দেখা যেতো শুধু তারপর;
কেবল একটি নারী কুয়াশা ফুরোলে
নদীর রেখার পার লক্ষ্য ক’রে চলে;
সূর্যের সমস্ত গোল সোনার ভিতরে
মানুষের শরীরের স্থিরতর মর্যাদার মতো
তার সেই মূর্তি এসে পড়ে।সূর্যের সম্পূর্ণ বড় বিভোর পরিধি
যেন তার নিজের জিনিস।

এতদিন পরে সেইসব ফিরে পেতে
সময়ের কাছে যদি করি সুপারিশ
তা’হলে সে স্মৃতি দেবে সহিষ্ণু আলোয়
দু-একটি হেমন্তের রাত্রির প্রথম প্রহরে;
যদিও লক্ষ লোক পৃথিবীতে আজ
আচ্ছন্ন মাছির মত মরে –
তবুও একটি নারী ‘ভোরের নদীর
জলের ভিতরে জল চিরদিন সূর্যের আলোয় গড়াবে’
এ রকম দু-চারটে ভয়াবহ স্বাভাবিক কথা
ভেবে শেষ হ’য়ে গেছে একদিন সাধারণভাবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button